৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান (১ম, ২য় ও ৩য় দিবস)

প্রিয় ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা কেমন আছেন আপনারা? এ সপ্তাহে আপনাদের জন্য বাংলা, শিল্প ও সংস্কৃতি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, জীবন ও জীবিকা, ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান  বিষয়ে মূল্যায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান দেওয়া হয়েছে। আবার বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়ন ৭ম শ্রেণির সকল বিষয়ের এসাইনমেন্টের সমাধানের জন্য বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করে থাকেন। অনেকেই অনলাইনে একটিভ থাকতে পারেন না বা অনলাইনে একটিভ থাকলেও তারা বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়নের সমাধান পান না। তাই আমি আজ আপনাদের জন্য ১ম, ২য় ও ৩য় দিবসের ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান নিয়ে বিস্তারিত জানানো হলো। 
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান (১ম, ২য় ও ৩য় দিবস)
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান (১ম, ২য় ও ৩য় দিবস)

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান

আপনারা যদি ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান খুঁজে থাকেন তাহলে এই পোস্টটি আপনার অনেক সাহায্য করবে। এখানে আমি সাধারণত প্রথম দিবসের (১০ মিনিট) বাৎসরিক মুল্যায়নের কাজ সহ অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় আলোচনা করেছি।

ইসলাম ধর্ম মূল্যায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান: (আজকের) ৭ম শ্রেণি ইসলাম ধর্ম মূল্যায়ন সমাধান (বার্ষিক সামষ্টিক) 2023

(আজকের) ৭ম শ্রেণি ইসলাম ধর্ম মূল্যায়ন সমাধান (বার্ষিক সামষ্টিক)
(আজকের) ৭ম শ্রেণি ইসলাম ধর্ম মূল্যায়ন সমাধান (বার্ষিক সামষ্টিক)

প্রথম দিবস: (১০ মিনিট)

  • প্রথম দিনে শিক্ষার্থীরা একটি প্রতিযোগিতামূলক দাঁড়িয়াবান্ধা/বউচি/গোল্লাছুট/ব্যাডমিন্টন খেলায় অংশগ্রহণ
    করবে।
  •  যেসব বিদ্যালয়ে খেলার মাঠ নেই সেখানে হলরুম/বড় শ্রেণিকক্ষে খেলার কোর্ট এঁকে কম সংখ্যক খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণে খেলা অনুষ্ঠিত হতে পারে।
  • প্রতিবন্ধীতাসম্পন্ন শিক্ষার্থীরা অন্য সবার সাথে একইভাবে খেলায় অংশগ্রহণ করতে করবে। সে ক্ষেত্রে সবাই মিলে খেলার জন্য খেলার গতি কিছুটা কমিয়ে দিয়ে তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।
  • প্রতিন্ধীতাসম্পন্ন শিক্ষার্থী থাকলে যে কোনো খেলার আয়োজন করা যেতে পারে যাতে শারীরিক কসরত ও উপভোগের এর সুযোগ থাকে।

প্রথম দিবস মূল্যায়নের জন্য প্রস্তুতি:

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান এর জন্য প্রথম দিবস মূল্যায়নের জন্য প্রস্তুতি কি কি হতে পারে? নিচ থেকে জেনে নিন। 

  • মূল্যায়নের প্রথম দিনে খেলায় অংশগ্রহণের জন্য শিক্ষার্থীর সংখ্যা অনুপাতে দলে ভাগ করার জন্য একটি পরিকল্পনা করে রাখবেন।
  • দাঁড়িয়াবান্ধা/বউচি/গোল্লাছুট / ব্যাডমিন্টন খেলার সরঞ্জামসহ প্রস্তুতি নিয়ে রাখবেন।
  • আপনাকে সহযোগিতা করতে পারে এমন ১/২ জন শিক্ষককে আগে থেকে বলে রাখতে পারেন।

যে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সহপাঠ শিক্ষা-কার্যক্রম (ছেলে ও মেয়ে শিক্ষার্থী একই সাথে পড়ে) চালু রয়েছে সেখানকার স্থানীয় সামাজিক পরিবেশের উপর ভিত্তি করে ছেলে ও মেয়েদের পৃথক দলের খেলা অনুষ্ঠিত হতে পারে।

আরো পড়ুনঃ ৭ম শ্রেণীর গণিত বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়ন এসাইনমেন্ট সমাধান

শ্রেণিতে কোন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী থাকলে খেলায় তার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে প্রতিবন্ধীতার ধরণ অনুযায়ী উপরে উল্লেখিত খেলা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

মনে রাখবেন, এখানে খেলার মূখ্য উদ্দেশ্য নিয়ম কানুন মেনে প্রতিযোগিতায় জেতা নয় বরং সবার অংশগ্রহণের ধরণ পর্যবেক্ষণ করা যাতে সংশ্লিষ্ট PI এর আলোকে শিক্ষার্থীদের পারদর্শিতার মূল্যায়ন করা যায়। এখানে খেলার শুরুতে প্রস্তুতি যেমন ওয়ার্ম আপ, দূর্ঘটনা ঘটলে কী করবে তার প্রস্তুতি রাখা, খেলা শেষে কুল ডাউন করা সহ অন্য যোগ্যতাগুলোর পারদর্শিতার মাত্রা যাচাইয়ের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পারদর্শিতার নির্দেশক (PI) ও তার মাত্রাগুলো সম্পর্কে খুব ভালোভাবে বুঝে নেবেন।

  • শিক্ষার্থীদের পারদর্শিতার রেকর্ড রাখার জন্য ডায়েরি বা ফরম্যাটের ফটোকপি প্রস্তুত রাখবেন।

৭ম শ্রেণি স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান এর জন্য শিক্ষার্থীরা, ১ম কাজটি বুঝার জন্য তোমরা তোমাদের মূল বইয়ের ২১ থেকে ২৫ পৃষ্ঠা পর্যন্ত ভালো করে পড়ে নিবে।

প্রতিফলনমূলক পেপার তৈরি:

খেলা শুরুর প্রস্তুতির জন্য কিছু ওয়ার্ম আপ:

১। স্ট্যান্ডিং এলবো টু ক্রানসেজ

বিবরণ: সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে কাঁধ বরাবর দুই পা ফাঁক করে দাঁড়াতে হবে। হাতদুটো মাথার পিছনে নিতে হবে। এরপর ডান হাতের কনুই দিয়ে বাম পায়ের হাটু স্পর্শ করতে হবে। বাম হাতের কনুই ডান পায়ের হাটুতে লাগতে হবে।
ক. সেট: ২
খ. কতবার: ১০ থেকে ১২ বার একেক পাশে।

 

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
স্ট্যান্ডিং এলবো টু ক্রানসেজ ব্যায়াম চিত্র

২। সিট আপস

বিবরণ: মাটিতে বা ম্যাটে চিৎ হয়ে শুয়ে পা দুটোকে ৯০ ডিগ্রি ভাঁজ করে শুতে হবে। দুই হাত মাথার পিছনে রাখতে হবে। বুক উপরে তুলে হাঁটুর সাথে স্পর্শ করতে হবে। এভাবে বুক উপরে তোলা এবং নামানোকে সিট আপস বলে।
ক. সেট: ২
খ. কতবার: ৫-৮ বার

 

 

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
সিট আপস ব্যায়াম চিত্র

৩। জাম্পিং জ্যাক

বিবরণ: সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে এবং হাত শরীরে পাশে ঝুলানো থাকবে। যখন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে ১ বলবে তখন শিক্ষার্থীরা লাফ দিয়ে দুই পা ফাঁক করে দাঁড়ানোর সাথে সাথে দুই হাত দিয়ে মাথার উপরে তালি বাজবে। আবার ২ বললে আগের অবস্থানে আসবে। এভাবে-

ক. সেট: ২

খ.কতবার: ৮-১০ জাম্প

 

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান

জাম্পিং জ্যাক ব্যায়াম চিত্র

 

৪। ৩০ সেকেন্ড করে ৩ বার হালকা রানিং করা।

৫। স্ট্যান্ডিং লাঞ্জেস

সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে। ডান পা সামনে বাড়িয়ে দিয়ে হাটু ভাঁজ করে নিচের দিকে বসতে হবে। তখন পিছনের পা পিছনের দিকে সোজা থাকবে অথবা একটু ভাঁজও হতে পারে। দুই বললে আবার সোজা অবস্থায় ফিরে আসতে হবে। আবার তিন বলার সঙ্গে সঙ্গে একইভাবে বাম পা সামনে বাড়িয়ে হাটু ভাঁজ করে নিচের দিকে বসতে হবে।
ক. সেট: ২
খ. কতবার: এক এক পা ৩ থেকে ৫ বার
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
স্ট্যান্ডিং লাঞ্জেস ব্যায়াম চিত্র

 

৬। সাইড টু সাইড ব্যান্ড

সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে পা দুটো কাঁধ বরাবর থেকে একটু বেশি ফাঁকা করে দাঁড়াতে হবে। এরপর ডান হাত কোমরে রেখে ডান দিকে কাঁত হবে। এই সময় বাম হাত কান বরাবর মাথার উপর দিয়ে ডান দিকে কাঁত হতে হবে।

ক. সেট: ২

খ. কতবার: ১০ থেকে ১২ বার একেক পাশে।

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
সাইড টু সাইড ব্যান্ড ব্যায়াম চিত্র

৭। স্ট্যান্ডিং লাঞ্জেস

সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে। ডান পা সামনে বাড়িয়ে দিয়ে হাটু ভাঁজ করে নিচের দিকে বসতে হবে। তখন পিছনের পা পিছনের দিকে সোজা থাকবে অথবা একটু ভাঁজও হতে পারে। দুই বললে আবার সোজা অবস্থায় ফিরে আসতে হবে। আবার তিন বলার সঙ্গে সঙ্গে একইভাবে বাম পা সামনে বাড়িয়ে হাটু ভাঁজ করে নিচের দিকে বসতে হবে।
ক. সেট: ২
খ. কতবার: এক এক পা ৩ থেকে ৫ বার

৮। হাঁটু বুকে লাগানো।

সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে দুই হাত দিয়ে হাটু ধরে টেনে বুকের কাছাকাছি বা বুকের সাথে লাগানোর চেষ্টা করতে হবে।

ক. সেট: ২

খ. কতবার: ৫ থেকে ৪ বার

৯। সিট আপস

মাটিতে বা ম্যাটে চিৎ হয়ে শুয়ে পা দুটোকে ৯০ ডিগ্রি ভাঁজ করে শুতে হবে। দুই হাত মাথার পিছনে রাখতে হবে। বুক উপরে তুলে হাঁটুর সাথে স্পর্শ করতে হবে। এভাবে বুক উপরে তোলা এবং নামানোকে সিট আপস বলে।
ক. সেট: ২
খ. কতবার: ৫-৮ বার

১০। হাঁটু বুকে লাগানো।

সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে দুই হাত দিয়ে হাটু ধরে টেনে বুকের কাছাকাছি বা বুকের সাথে লাগানোর চেষ্টা করতে হবে।

ক. সেট: ২

খ. কতবার: ৫ থেকে ৪ বার

 

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
হাঁটু বুকে লাগানো ব্যায়াম চিত্র

আমার অনুভূতি:  ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান পদ্ধতি

আমার খুব ভালো লেগেছে। প্রত্যেকের মধ্যে একে অপরকে সাহায্য-সহযোগিতা করার মনোভাব জাগ্রত হয়েছে এবং নতুন কিছু শিখতে পেরেছি। মূলত সম্পূর্ণ মূল্যায়নটাই ছিল গ্রুপ ওয়ার্ক। ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান পদ্ধতি উল্লেখ করা হলো।
খেলা শেষে কুলডাউনের জন্য কিছু ব্যায়াম করেছি। সেগুলো নিচে উল্লেখ করা হলো:
খেলা শেষে কুলডাউনের জন্য কিছু ব্যায়াম করেছি এবং ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান পদ্ধতি আলোচনা করছি।
১। হালকা জগিং বা হাঁটা এটি ঠান্ডা করার সবচেয়ে সহজ উপায়গুলির মধ্যে একটি। ৩ থেকে ৬ মিনিট হালকা জগিং করুন তারপর ও থেকে ৫ মিনিট দ্রুত বা সহজে হাঁটা।
২। Upper body stretch:
(ক) উপরের শরীরের প্রসারিত দাঁড়ানো বা বসার অবস্থান থেকে, আপনার আঙ্গুলগুলিকে ইন্টারলেস করুন এবং আপনার হাতের তালুগুলিকে ছাদের দিকে টিপুন।
(খ) সোজা মেরুদণ্ড বজায় রেখে যতদূর সম্ভব আপনার হাত উপরে এবং পিছনে আঁকুন।
(গ) তারপরে আপনার বাম হাতটি আপনার ডানদিকের সামনে রাখুন এবং আপনার হাতগুলিকে একে অপরের মুখোমুখি করুন, আপনার হাত উপরে এবং পিছনে প্রসারিত করুন।
(ঘ) বিপরীত দিকে একই পদ্ধতি পুনরাবৃত্তি করুন।
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
Upper body stretch ব্যায়াম চিত্র

৩। Seated Forward Bend:

(ক) আপনার সামনে আপনার পা প্রসারিত করে বসুন।
(খ) সামনে ভাঁজ করতে আপনার নিতম্বে কব্জা করুন।
(গ) আপনার পায়ে বা মেঝেতে আপনার হাত রাখুন।
(ঘ) এই অবস্থানটি । মিনিট পর্যন্ত ধরে রাখুন।
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
eated Forward Bend ব্যায়াম চিত্র

৪। Head-to-Knee Forward Bend:

(ক) বসা অবস্থায়, আপনার ডান পা প্রসারিত করুন এবং আপনার বাম পা আপনার ডান উরুতে টিপুন।
(খ) আপনার ডান পায়ের অভ্যন্তরের সাথে আপনার বুকের হাড়টি সারিবদ্ধ করুন যখন আপনি আপনার বাহু মাথার উপরে উঠান।
(গ) আপনার শরীরে বা মেঝেতে হাত রেখে সামনের দিকে ভাঁজ করার জন্য আপনার নিতম্বে কব্জা করুন।
(ঘ) এই অবস্থানটি ১ মিনিট পর্যন্ত ধরে রাখুন।
(ঙ) বিপরীত দিকে একই পদ্ধতি পুনরাবৃত্তি করুন।
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
Head-to-Knee Forward Bend ব্যায়াম চিত্র
তৃতীয় দিবস : ২-৩ ঘন্টা (মূল্যায়ন উৎসব)
কাজ ১: স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিজের ও অন্যের প্রতি তার নিজের সক্রিয় ভূমিকার একটি চিত্র তুলে ধরে পোষ্টার প্রদর্শনী করবে। ছবি আঁকা, লেখা, ম্যাসেজ, স্লোগান অথবা নিজের পছন্দমতো যে কোনো উপায়ে এক দিকে লেখা ছোট ছোট কাগজে / ব্যবহৃত ক্যালেন্ডারের পাতায় / শপিং ব্যাগের কাগজে লিখতে পারে অথবা ছোট ছোট কাগজে লিখে পুরোনো লেখা কাগজে / পুরোনো খবরের কাগজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে পোষ্টার তৈরি করতে উৎসাহিত করবেন।
কাজ ২: সমাপনী পর্বে শিক্ষার্থীরা দলে ভাগ হয়ে একটি কাগজে প্রথমে সে নিজে এবং সবাই সবাইকে ১টি ইতিবাচক দিক ও ১টি উন্নয়নের ক্ষেত্র লিখে দেবে। শেষ হলে দলে এই কার্যক্রমে তার অনুভুতি ও অভিজ্ঞতা শেয়ার করবে।
নিচে একটি পোষ্টার তৈরি করা হলো: 
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান
পোষ্টার তৈরি

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন এ ইতিবাচক ও উন্নয়নের ক্ষেত্র নিয়ে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করা।

হাকিম: দ্রুত বন্ধুত্ব তৈরি করতে পারি। হাতের লেখা সুন্দর করছি।
সিফাত: সবার সাথে ভালো ব্যবহার। গণিত ভালো বুজতে পাড়ি।
ফিরোজ: বড়দের শ্রদ্ধা করা এবং ছোটদের স্নেহ করা। পড়তে ভালো লাগে।
রাজিব: সবার সাথে হাসিমুখে কথা বলি। প্রোগ্রামিং ভাষা শিখছি।
শাকের: মিথ্যা কথা পছন্দ করি না। গানের গলা ভালো করছি।

৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান সংক্রান্ত কিছু প্রশ্নঃ

১. খেলা শুরু করার আগে কী কী প্রস্তুতি নিয়েছিল, ওয়ার্মআপ করেছিল কী না ও কী কী করেছে, খেলা শেষে কুল ডাউনের জন্য কী কী করেছে? 

খেলাশুরু করার আগে আমাদের দলের জার্সি এবং জুতা পরি। খেলার মাঠে কোথাও কোন ক্ষতিকর হতে পারে এমন ধরনের বস্তু যেমন: ভাঙ্গা কাঁচ, ইটের কণা আছে কিনা দেখেছি। মূল খেলার পূর্বে সবাই মিলে ওয়ার্মআপ করেছি। ওয়ার্মআপ গুলো নিচে উল্লেখ করা হলো;

২. দূর্ঘটনা ঘটলে কি কি করা যায়? 
এ পর্যায়ে ৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন এর জন্য কারও দূর্ঘটনা ঘটলে নিন্মলিখিত পদক্ষেপগুলো নিতে পারি-
প্রাথমিক চিকিৎসা: প্রাথমিক চিকিৎসা সাধারণত যেকোনো দুর্ঘটনা বা অসুস্থতার চিকিৎসক, প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মী অথবা এম্বুলেন্স আসার আগে দেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার প্রধান উদ্দেশ্য চিকিৎসক প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীর সেবা পাওয়ার পূর্বে জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করা বা দুর্ঘটনার ক্ষতি বাড়তে না দেওয়া।
যেকোনো প্রাথমিক চিকিৎসার শুরুতেই যে বিষয়গুলো গুরুত্ব দিতে হয় তার মধ্যে রয়েছে:
  • ১। ব্যক্তির শ্বাস-প্রশ্বাস ঠিক রাখা।
  • ২। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ বন্ধ করা।
  • ৩। ভাঙা হাড়ের যত্ন নেওয়া।
৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন এ খেলাধুলা ও শরীরচর্চার সময় আমরা যে সমস্ত দুর্ঘটনার মুখোমুখি হতে পারি সেগুলো এবং এর ক্ষেত্রে প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে আমরা কী করতে পারি তা নিচে উল্লেখ করা হলো:

কেটে যাওয়া:

খেলাধুলা ও শরীরচর্চা বা অন্যান্য কাজকর্মের সময় কেটে গেলে সেটা দুই ধরনের ক্ষত তৈরি করতে পারে, গভীর বা অগভীর। ক্ষতস্থান ভালো করে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে যাতে সেখানে কোনো ধুলাবালু বা অন্য কোনো ময়লা না থাকে। খেয়াল করতে হবে রক্তপাত যাতে বেশি না হয়। রক্তপাত বন্ধ করার জন্য ক্ষতস্থান চাপ দিয়ে ধরে রাখতে হবে এবং কোনো পরিষ্কার কাপড় দিয়ে ক্ষতস্থান বেঁধে দিতে হবে।

হাড়ভাঙা:

দুর্ঘটনার পর শরীরে কোনো অংশ যদি স্বাভাবিক আকৃতির না থাকে, প্রচন্ড ব্যাথা হয় এবং ফুলে যায় তাহলে ধরে নিতে হবে সেখানকার কোনো হাড় ভেঙে গেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে এজন্য কোনো লাঠি দিয়ে ভাঙা অংশের দুপাশে বেঁধে দেওয়া যেতে পারে। রক্তক্ষরণ হতে থাকলে সেটি বন্ধ করার ব্যবস্থা নিতে হবে এবং যত দ্রুত সম্ভব হাসপাতাল বা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতে হবে।

মচকানো:

শরীরচর্চা, খেলাধুলা বা অন্যান্য কাজের সময় হাড়ের সংযোগ স্থান হঠাৎ মচকে গেলে বা বেঁকে গেলে ঐ জায়গার স্নায়ুতন্ত্রের ওপর টান পড়ে বা ফিঁড়ে গিয়ে যে অসুবিধার সৃষ্টি হয় তাকে মচকানো বলে। এর ফলে প্রচন্ড ব্যাথা হওয়া এবং ফোলা ফোলা ভাব তৈরি হতে পারে। প্রথমেই মচকে যাওয়া অংশ যেননড়াচড়া না করা হয় সে ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রয়োজনে ক্রেপ ব্যান্ডেজ ব্যবহার করা যেতে পারে। ব্যাথা কমানোর জন্য বরফ বা ঠান্ডা পানি ব্যবহার করা যেতে পারে। ব্যাথা বেশি হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া যেতে পারে।

পেশির টান খাওয়া:

খেরাধুলার সময় আমাদের শরীরের মাংসপেশি অতিরিক্ত সংকুচিত হলে এই অবস্থা তৈরি হতে পারে। পেশি টান খেলে প্রচন্ড ব্যাথা অনুভূত হয়। এই পরিস্থিতিতে টান খাওয়া পেশিকে প্রসারণ করার চেষ্টা করতে হবে। ব্যথা কমানোর জন্য গরম সেঁচ অথবা বরফ লাগানো যেতে পারে।

নাক দিয়ে রক্ত পড়া:

আঘাতজনিত বা অন্য কোনো কারণে কারও নাক দিয়ে রক্ত পড়তে শুরু করলে সাথে সাথে তাকে চিৎ করে শোয়াতে হবে কিংবা বসিয়ে মাথা পেছনের দিকে হেলিয়ে রাখতে হবে। নাকের সামনে ও ঘাড়ের পিছনে ঠান্ডা পানির ঝাপটা বা বরফ দিতে হবে। রক্ত পড়া বন্ধ হওয়ার পরও কিছুক্ষণ নাকের ছিদ্রপথে তুলো দিয়ে রাখতে হবে।

৩. যে খেলা তারা খেলেছে কি ধরনের আঘাত বা দুর্ঘটনা সম্মুখীন হয়েছে বা হতে পারত বলে তারা মনে করছে?

আমরা দাঁড়িয়াবান্ধা, বউচি, গোল্লাছুট এবং ব্যাডমিন্টন খেলায় অংশগ্রহণ করেছি। এই খেলাগুলো খেলার সময় বিভিন্ন ধরনের আঘাতের সম্মুখীন হতে হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মচকানো, পেশিতে টান খাওয়া, পেশি বা লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়া, নাক দিয়ে রক্ত পড়া ইত্যাদি। কিন্তু আমরা খেলার পূর্বে সঠিকভাবে ওয়ার্ম আপ এবং খেলার শেষে কুলডাউন করাই তেমন বিপদের সম্মুখীন হয়নি। বিশেষ করে সাবাধানতার সাথে খেলাধুলা করার কারণে মূলত দুর্ঘটনা হয়নি

৪. এ আঘাত বা দুর্ঘটনাগুলোর প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য তারা কী ব্যবস্থা নিয়েছিল?

খেলাধুলার সময় দুর্ঘটনার স্বীকার হওয়া স্বাভাবিক ব্যাপার। দুর্ঘটনার দিক মাথায় রেখে আমরা ফার্স্ট এইড বক্সের ব্যবস্থা করেছিলাম। এই বক্সে ছিল তুলা, গজ, কাঁচি, ব্যান্ডেজ, অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম, কাপড়, থার্মোমিটার, ক্রেপ ব্যান্ডেজ ইত্যাদি।

৫. নিজের প্রতিফলনের উপর ভিত্তি করে ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী?

সুন্দর ও সুস্থ জীবন গঠনে খেলাধুলার ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ব্যক্তিজীবন, পারিবারিক জীবন, এমনকি জাতীয় জীবনের সফলতা লাভের পেছনে কাজ করে সুস্থ ও সুঠাম দেহ। আর এই সুস্থ দেহ গঠনের জন্যে খেলাধুলা অপরিহার্য। তাই আমি খেলাধুলা কার্যক্রমের সাথে সবসময় জড়িয়ে থাকতে চাই।
Visited 5,287 times, 1 visit(s) today

2 thoughts on “৭ম শ্রেণির স্বাস্থ্য সুরক্ষা বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পুর্ণ সমাধান (১ম, ২য় ও ৩য় দিবস)”

Leave a Comment

You cannot copy content of this page