অভিনব পদ্ধতিতে দরখাস্ত লেখার নিয়ম | এক ফরম্যাটই যথেষ্ট

আমাদের নিত্য নৈমিত্তিক জীবনে যেমন অফিস আদালত, স্কুল কলেজে বা কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক কাজেই দরখাস্ত লিখে ছুটি বা অন্যান্য বিষয়ের জন্য আবেদন করতে হয়। কিন্তু দরখাস্ত লেখার নিয়ম কি কি এগুলো সঠিক ভাবে না জানার কারণে অনেকেই দরখাস্ত লিখতে পারে না। এর ফলে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়। আমাদের জীবনে অনেক কাজের ক্ষেত্রেই আমাদের চিঠি লেখার প্রয়োজন পড়ে। প্রাচীনকাল থেকেই চিঠি লেখার রিতি প্রচলিত আছে।

চিঠির ধরণ অনুযায়ী কয়েক ধরণের হয়ে থাকে। যেমন কিছু রয়েছে ব্যক্তিগত চিঠি এবং কিছু রয়েছে আবেদনপত্র বা দরখাস্ত। অনেক ধরণের অফিসিয়াল এবং আনফিসিয়াল কাজের ক্ষেত্রেই আমাদের দরখাস্ত লিখতে হয়। লিখতে গেলে আমাদের সঠিক ফরম্যাট জানতে হবে। নয়ত, আমরা দরখাস্ত লিখতে পারবো না। আজকের এই পোস্টে আমি শেয়ার করবো দরখাস্ত লেখার নিয়ম গুলো যা আপনার জানা আবশ্যক দরখাস্ত লিখতে চাইলে।

অভিনব পদ্ধতিতে দরখাস্ত লেখার নিয়ম  এক ফরম্যাটই যথেষ্ট
অভিনব পদ্ধতিতে দরখাস্ত লেখার নিয়ম এক ফরম্যাটই যথেষ্ট

 

দরখাস্ত লেখার নিয়ম লেখা নিয়ে প্রাথমিক কথাঃ

দরখাস্ত লেখার নিয়ম লেখা নিয়ে কিছু প্রাথমিক কথা শেয়ার করব। দরখাস্ত একটি শব্দ , কিন্তু এর মাঝেও ধরণ রয়েছে। যেমন- অনেকেই ছুটির জন্য তার অফিসের বসের কাছে দরখাস্ত লেখে। আবার কেউ স্কুল থেকে ছুটি পাওয়ার লক্ষে স্কুলের হেড মাস্টারের কাছে দরখাস্ত লেখে। কেউ বা আবার বিভিন্ন কোম্পানিতে দরখাস্ত লেখে সেই কোম্পানি থেকে সুযোগ গ্রহন করার জন্য কিংবা কোন আবেদন করার জন্য। দরখাস্ত বা আবেদন মানে কোনো কিছু চেয়ে চিঠি লেখা। যেহেতু দরখাস্ত এর মাঝে ধরণ আছে, তাই প্রত্যেকটি দরখাস্ত লেখার ধরণ আলাদা। কিন্তু আপনি যদি যেকোনো একটি দরখাস্ত লেখার নিয়ম আয়ত্ত করতে পারেন, তবে অনায়াসে যেকোনো ধরণের দরখাস্ত লিখতে পারবেন।

কেন দরখাস্ত লেখার নিয়ম জানবেন?

দরখাস্ত লেখার নিয়ম জানা সবার জন্যই জরুরি। কারণ, অনেক সময় আমাদের দরখাস্ত লেখার প্রয়োজন পড়ে। চাকরি থেকে ছুটি পাওয়ার জন্য কিংবা স্কুল থেকে ছুটি পাওয়ার জন্য, আমাদের দরখাস্ত লিখতেই হয়। আবেদন পত্র লেখার নিয়ম না জানার কারণে অনেকেই আর আবেদন করতে পারে না। লোকলজ্জার ভয়ে অন্য কারো থেকে লিখে নিতেও চাওয়ার ইচ্ছে করে না। ফলে আর সময়মত আবেদন/দরখাস্ত করা হয়ে উথে না। ডিজিটাল এই জুগে মানুষ ই মেইলের মাধ্যমে চিঠি পাঠাচ্ছে। এক্ষেত্রেও কিন্তু দরখাস্ত আছে এবং দরখাস্ত কিভাবে লিখতে হয় সেটা জানা থাকা জরুরি। নিশ্চয়ই বুঝেছেন আমাদের আবেদন পত্র লেখার নিয়ম জানা আবশ্যক কেনো।

২০২৩ সালে দরখাস্ত লেখার নিয়ম

প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে এবং সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে ২০২৩ সালে দরখাস্ত লেখার নিয়ম পরিবর্তন হয়েছে। হাতের মুঠোয় মোবাইল ফোন হওয়ার কারণে এখন পুরো পৃথিবীও হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। মোবাইল এবং কম্পিউটার এর কল্যাণে এখন ঘরে বসে সবকিছু করা সম্ভব হচ্ছে। ঠিক তেমনি, আপনি যদি দরখাস্ত লেখার নিয়ম না জেনে থাকেন, তবে গুগলে সার্চ দিয়ে সম্ভবত আমাদের ওয়েবসাইটে এসেছেন কিভাবে দরখাস্ত লিখতে হয় সেটা জানতে। নিচে আমি আপনাদেরকে একদম স্টেপ অনুযায়ী দেখাবো দরখাস্ত কিভাবে লিখবেন যেন সেটা দেখে যে কেউ মুগ্ধ হয়।

আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ২০২৩

দরখাস্ত এবং আবেদনপত্র এর মাঝেই কোন পার্থক্য নেই। আপনি যদি কোনো কিছু চেয়ে কারো কাছে চিঠি পাঠান তবে সেটাই দরখাস্ত বা আবেদনপত্র। আবেদন পত্র লেখার নিয়ম এবং দরখাস্ত লিখার নিয়ম একই। দরখাস্ত এবং আবেদন পত্র ২টি সমার্থক শব্দ। তাই ঘাবড়ানোর কিছু নেই, আপনি এই পোস্টের ভিতর একদম বিস্তারিত সবকিছু পেয়ে যাবেন।

আরো পড়ুন ঃ [Live] আরবি কত তারিখ আজ ২০২৩ | আজ আরবি মাসের কত তারিখ?

দরখাস্ত লেখার নিয়মাবলি ২০২৩

সবকিছুরই একটি মৌলিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যেগুলো বাদ দিয়ে সেই জিনিসটি সম্পূর্ণ হয় না। ঠিক তেমনি আবেদনপত্র বা দরখাস্ত লিখার জন্য কিছু মৌলিক বিষয় রয়েছে। যা বাদ দিয়ে একটি দরখাস্ত বা আবেদনপত্র লেখা সম্ভব না। নিচে আমি দরখাস্ত লেখার নিয়মাবলি ২০২৩ এর ৭ টি মৌলিক বিষয় তুলে ধরেছি যেগুলো আপনি দরখাস্ত লেখার সময় মাথায় রেখে দরখাস্ত লিখবেন। প্রত্যেকটি দরখাস্ত লেখার সময় আপনার এই মৌলিক বিসয়গুল অবশ্যই জানতে হবে।

  1. আবেদনের সঠিক তারিখ।
  2. প্রাপক (যার কাছে আবেদন করছেন তার নাম, পদবী ও ঠিকানা)।
  3. আবেদনের বিষয়।
  4. সম্ভাষণ/জনাব/স্যার/ম্যাডাম ইত্যাদি।
  5. আবেদনের বিষয়ে গঠনমূলক বর্ণনা।
  6. আবেদনকারী নাম ও ঠিকানা।
  7. আবেদনের সঠিক তারিখ।

উপরোক্ত ৭টি বিষয় আপনাকে একটি দরখাস্ত লেখার সময় অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে।

কি কারণে আবেদনপত্র বাতিল হয়ে যায়ঃ

একটি দরখাস্ত বা আবেদনপত্র বাতিল হতে পারে বিভিন্ন কারণে। আমাদের লেখার ভুল, উদ্দেশ্য ভুল বা অন্য যেকোনো কারনেই দরখাস্ত বাতিল হয়ে যেতে পারে। একটি দরখাস্ত লিখতে যেমন সময় লাগে, তার থেকে বেশি সময় লাগে দরখাস্তটি রিভিউ হতে। একটি দরখাস্ত রিভিউ হওয়ার পর যদি বাতিল হয়ে যায়, তবে সেটি কিছুটা হলেও মনকে ভারাক্রান্ত করে তোলে। তাই , দরখাস্ত লেখার সময় আমাদের নিচে উল্লিখিত দরখাস্ত লেখার নিয়ম গুলো মেনে দরখাস্ত লিখলে আর বাতিল হবে না আমাদের দরখাস্ত।

  1. দরখাস্তের নির্ধারিত ফরম্যাট অনুসরন না করলে।
  2. দরখাস্তের নির্দিষ্ট ফরম সঠিকভাবে পূরণ না করলে।
  3. নির্দিষ্ট জায়গায় স্বাক্ষর না দিলে।
  4. কর্তৃপক্ষের নির্দেশমত ফটো না দিলে।
  5. ঠিকমতো পেশাগত বা শিক্ষাগত যোগ্যতা না দিলে।
  6. বয়স ঠিকমতো না অন্তর্ভুক্ত করলে।
  7. আবেদনের যথাযথ ফি জমা না দেওয়া।
  8. অভিজ্ঞতা চাওয়া হলে সেটা স্কিপ করে গেলে।
  9. প্রমাণ পত্রাদি চাইলে তা সঠিকভাবে উপস্থাপন না  করিলে।
  10. যোগ্যতা, কাস্ট সার্টিফিকেট যে তারিখের ভেতর পূরণ করার কথা সেই তারিখে পূরণ না করলে।
  11. সংরক্ষিত পদের জন্য অসংরক্ষিত কেউ এবং অসংরক্ষিত পদের জন্য সংরক্ষিত কেউ আবেদন করলে।

দরখাস্ত লেখার নিয়ম এবং নমুনা

দরখাস্ত লেখার নিয়ম এবং নমুনা অনেক ধরণের। সবগুলো দরখাস্তের নিয়ম একই। আপনি যেকোনো একটি দরখাস্ত লেখার নিয়ম আয়ত্ত করে নিলে আর কোন কিছু করতে হবে না। সব ধরণের দরখাস্তের নমুনা দেয়া সম্ভব না। তাই আমি নিচে কয়েকটি দরখাস্ত লেখার নিয়ম এর নমুনা দিচ্ছি। যেগুলো দেখে আপনি দরখাস্ত লেখার নিয়ম জানতে পারবেন অনেক দ্রুত।

১. ছাড়পত্রের জন্য আবেদন

তারিখঃ- ০৬/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
প্রধান শিক্ষক
চান্দিনা রেদোয়ান আহামেদ কলেজ
চান্দিনা,কুমিল্লা,বাংলাদেশ

বিষয়ঃ ছাড়পত্রের জন্য আবেদন।

জনাব
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি ফারহান, আপনার কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির একজন নিয়মিত ছাত্র। আমার বাবা একজন সেনা অফিসার । তাঁর বর্তমান কর্মস্থল কুমিল্লা কেন্টরমেন্ট হতে ঢাকা বদলি হওয়ায় আপনার কলেজে আর অধ্যয়ন করা সম্ভব হবে না।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন এই যে, আমার সমস্যার বিষয়টি বিবেচনা করতঃ সকল বকেয়া বেতন ও ফি পরিশোধ পূর্বক আমাকে ছাড়পত্র প্রদানের জন্য আপনার সুমহান মর্জি কামনা করছি।

বিনীত
আপনার স্নেহময় ছাত্র
ফারহান
দ্বাদশ শ্রেণী
রোল নংঃ- ১

২. অগ্রিম ছুটির দরখাস্ত (স্কুল ও কলেজ)

তারিখঃ- ০৯/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
প্রধান শিক্ষক
কুটুম্বপুর উচ্চ বিদ্যালয়
কুটুম্বপুর, চান্দিনা, কুমিল্লা

বিষয়ঃ অগ্রিম ছুটির জন্য আবেদন।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি ফারহান আপনার স্কুলের ১০শ্রেণীর একজন নিয়মিত ছাত্র। আগামী ১২/০৬/২০২৩ ইং রোজ শুক্রবার আমার ছোট বোনের শুভ বিবাহ অনুষ্ঠিত হবে বিধায় ১০/০৬/২০২৩ ইং থেকে ১৪/০৬/২০২৩ ইং পর্যন্ত মোট ৫ (পাঁচ) দিন বিদ্যালয়ে উপস্থিত হতে পারবো না।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আমার আকুল আবেদন এই যে, উপরোক্ত বিষয়টি বিবেচনা করে আমাকে ৫ (পাঁচ) দিনের অগ্রিম ছুটি দানে বাধিত করবেন।

বিনীত
আপনার স্নেহময় ছাত্র
ফারহান
১০ম শ্রেনী
রোল নংঃ- ০২

৩.অসুস্থতার জন্য ছুটির আবেদন

তারিখঃ- ১৫/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
প্রধান শিক্ষক
চান্দিনা রেদোয়ান আহামেদ কলেজ
চান্দিনা,কুমিল্লা,বাংলাদেশ

বিষয়ঃ অনুপস্থিত থাকায় ছুটি চেয়ে দরখাস্ত।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি ফারহান আপনার কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির একজন নিয়মিত ছাত্র। গত ১১/০৬/২০২৩ ইং বৃহস্পতিবার থেকে ১৪/০৬/২০২৩ ইং রোজ রবিবার পর্যন্ত আমার প্রচণ্ড জ্বর থাকার থাকার কারণে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হতে পারি নাই ।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আমার আকুল আবেদন এই যে, উপরোক্ত বিষয়টি বিবেচনা করে আমাকে ০৪ (চার) দিনের ছুটি দানে বাধিত করবেন।

বিনীত
আপনার স্নেহময় ছাত্র
ফারহান
দ্বাদশ শ্রেনী
রোল নংঃ- ০৩

৪. জরিমানা মওকুফের জন্য দরখাস্ত লেখার নিয়ম

তারিখঃ- ০৯/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
অধ্যক্ষ
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
কুমিল্লা,বাংলাদেশ

বিষয়ঃ জরিমানা মওকুফের জন্য আবেদন।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি ফারহান, আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং বিভাগের একজন নিয়মিত ছাত্র। আমার বাবা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ, ফলে পারিবারিক ভাবে আমাদের অর্থসংকট ও অভাবঅনুটনের কারণে দীর্ঘ তিনমাস বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ফি পরিশোধ করতে পারিনি। উল্লেখ্য যে, আমদের পরিবারে আমার আব্বুই একমাত্র উপার্জনকারী যার আয়ের টাকায় আমাদের ছোট্ট এই সংসার চলে।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন এই যে, আমার বাবা’র অসুস্থতা ও পরিবারের আর্থিক সমস্যার কথা বিবেচনা করে জরিমানা ছাড়া সকল ফী ও বেতন প্রদানের অনুমতি দানে আপনার সদয় মর্জি কামনা করছি।

বিনীত
বিনীত
আপনার স্নেহময় ছাত্র
ফারহান
দ্বিতীয় বর্ষ
রোল নংঃ- ৫২৮২৭০

৫. বোনের বিয়ের জন্য ছুটির দরখাস্ত লেখার নিয়ম

তারিখ- ১২/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
প্রধান শিক্ষক
কুটুম্বপুর উচ্চ বিদ্যালয়।

বিষয়ঃ বোনের বিয়ের জন্য ছুটির আবেদন।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, এতটুকু লেখার পর সংক্ষিপ্ত আকারে গুছিয়ে আপনার বিষয় বস্তু সুন্দর করে লেখুন।

বিনীত
আপনার স্নেহময় ছাত্র
ফারহান
১০ শ্রেণী
রোলঃ- ১১

আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

নিচে আমি কিছু আবেদনপত্র বা দরখাস্ত লেখার নিয়ম লিখে দিচ্ছি।আপনি যদি চাকরিতে যোগদান করেন কিংবা চাকরিরত অবস্থায় কোনো প্রয়োজনে দরখাস্ত লেখেন, তবে এই দরখাস্ত লেখার নিয়মগুলো অনেক কাজে আসবে আপনার।

১. অফিসিয়াল ছুটির আবেদন (অনুপস্থিতির জন্য)

তারিখ-৩০/০৬/২০২৩ খ্রিঃ

বরাবর
ব্যবস্থাপক
ডাচ বাংলা ব্যাংক লিঃ
কান্দিরপার শাখা, কুমিল্লা।

বিষয়ঃ অনুপস্থিতির জন্য ছুটির আবেদন।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী আপনার অধিনস্থ ডাচ বাংলা ব্যাংক লিঃ, কান্দিরপার শাখা, কুমিল্লা এর একজন সিনিয়র অফিসার। আমার শারিরীক অসুস্থতার কারনে গত ২৫/০৬/২০২৩ খ্রিঃ হতে ২৯/০৬/২০২৩ খ্রিঃ তারিখ পর্যন্ত মোট ০৫ (পাঁচ) দিন অফিসে উপস্থিত হতে পারিনি।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন এই যে, আমার অসুস্থতার বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিতে বিবেচনা করে অনুপস্থিতি কালের ৫ (পাঁচ) দিন ছুটি মঞ্জুর করতে আপনার সদয় মর্জি হয়।

বিনীত
আপনার একান্ত বাধ্যগত
(ফারহান)
সিনিয়র অফিসার
ডাচ বাংলা ব্যাংক লিঃ
কান্দিরপার শাখা, কুমিল্লা

২. কম্পিউটার অপারেটর পদে চাকরির দরখাস্ত লেখার নিয়ম

তারিখঃ- ০৯/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর,
সভাপতি
টেকিবিএন ডট কম
ঢাকা, বাংলাদেশ

বিষয়ঃ কম্পিউটার অপারেটর পদের জন্য আবেদন।

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে, গত ১২/০৬/২০২৩ খ্রিঃ তারিখে দৈনিক “প্রথম আলো” অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানতে পারলাম যে, কম্পিউটার অপারেটর পদে আপনার প্রতিষ্ঠানে ১ জন লোক নিয়োগ দেওয়া হবে। আমি উক্ত পদের একজন প্রার্থী হিসেবে আমার শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ যাবতীয় আনুষাঙ্গিক তথ্যাদি মহোদয়ের নিকট তুলে ধরলাম।

১। নামঃ ফারহান
২। পিতার নামঃ ক্সক্সক্সক্স
৩। মাতার নামঃ ক্সক্সক্সক্স
৪। বর্তমান ঠিকানাঃ মহিচাইল, চান্দিনা, কুমিল্লা।
৫। স্থায়ী ঠিকানাঃ মহিচাইল, চান্দিনা, কুমিল্লা।
৬। জন্ম তারিখঃ ১৯/০৬/১৯৯৬
৭। জাতীয়তাঃ বাঙালী
৮। ধর্মঃ ইসলাম

৯। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ

পরীক্ষার নামবোর্ডপাশের সনপ্রাপ্ত গ্রেড
এসএসসিকুমিল্লা২০১২জিপিএ-৫
এইচএসসিকুমিল্লা২০১৪জিপিএ-৫
বিএসসিকুমিল্লা২০১৯প্রথম শ্রেণী
এমএসসিকুমিল্লা২০২১প্রথম শ্রেণী

অতএব, মহোদয়ের নিকট বিনীত আবেদন এই যে, আমকে আপনার প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার অপারেটর  হিসাবে নিয়োগ পেতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

বিনীত
আপনার স্নেহময়
(ফারহান)
+880 1712-123456

সংযুক্তঃ
১ | ২ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।
২ | সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রের ফটোকপি।
৩ | চেয়ারম্যান কর্তৃক নাগরিকত্বের সনদপত্র।

৩. সহকারী শিক্ষক পদে চাকরির আবেদন

তারিখ- ১২/০৬/২০২৩ ইং
বরাবর
সভাপতি
মহিচাইল উচ্চ বিদ্যালয়
মহিচাইল,চান্দিনা, কুমিল্লা

বিষয়ঃ সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য আবেদন।

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে, গত ০৬/০৬/২০২৩ খ্রিঃ তারিখে দৈনিক “কুমিল্লা এর ডাক” পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানতে পারলাম যে, সহকারী শিক্ষক পদে আপনার বিদ্যালয়ে ২ জন লোক নিয়োগ দেওয়া হবে। আমি উক্ত পদের একজন প্রার্থী হিসেবে আমার শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ যাবতীয় আনুষাঙ্গিক তথ্যাদি মহোদয়ের নিকট তুলে ধরলাম।
১। নামঃ ফারহান
২। পিতার নামঃ
৩। মাতার নামঃ
৪। বর্তমান ঠিকানাঃ মহিচাইল, চান্দিনা, কুমিল্লা।
৫। স্থায়ী ঠিকানাঃ মহিচাইল, চান্দিনা, কুমিল্লা।
৬। জন্ম তারিখঃ ১৯/০৬/১৯৯৬
৭। জাতীয়তাঃ বাঙালী
৮। ধর্মঃ ইসলাম
৯। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ

পরীক্ষার নামবোর্ডপাশের সনপ্রাপ্ত গ্রেড
এসএসসিকুমিল্লা২০১২জিপিএ-৫
এইচএসসিকুমিল্লা২০১৪জিপিএ-৫
বিএসসিকুমিল্লা২০১৯প্রথম শ্রেণী
এমএসসিকুমিল্লা২০২১প্রথম শ্রেণী

সহকারী শিক্ষক পদে চাকরির আবেদন
অতএব, মহোদয়ের নিকট বিনীত আবেদন এই যে, আমকে আপনার বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পেতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

সংযুক্তিঃ
১। পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি ২ কপি।
২। একডেমিক সকল সনদপত্রের সত্যায়িত কপি।
৩। চারিত্রিক সনদপত্র।
৪। নাগরিকত্ব সনদপত্র।
৫। ৫০০ টাকার পোস্টাল অর্ডার।

৪ঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক পদে চাকরির আবেদন

তারিখঃ ২৪/০৭/২০২৩ ইং
মাননীয় মহাপরিচালক
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর
মিরপুর, ঢাকা।

বিষয়ঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন

মহোদয়,
সবিনয়ে নিবেদন এই যে, গত ১৬ই জুন ২০২৩ তারিখে দৈনিক ‘জনকণ্ঠ’ পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানতে পারলাম যে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক পদে লোক নিয়োগ করা হবে। আমি উক্ত পদের একজন প্রার্থী হিসেবে আবেদন করছি। নিম্নে আমার শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ জীবনবৃত্তান্ত উল্লেখ করা হলোঃ

১. নামঃ ফাল্গুনী আহমেদ দীপিকা
২. পিতার নামঃ কাজী শামসুদ্দিন আহমেদ
৩. মাতার নামঃ বেগম হাফিজা সুলতানা
৪. স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানাঃ ফজলুল হক মুন্সী বাড়ি, গ্রাম – ডুমুরখালি, পোস্ট -ঝিকরগাছা, জেলা – যশোর।
৫. জন্ম তারিখঃ ২৮শে মে, ১৯৯২
৬. জাতীয়তাঃ বাংলাদেশি
৭. ধর্মঃ ইসলাম
৮. শিক্ষাগত যোগ্যতার বিবরণঃ

পরীক্ষার নামপাসের বছরগ্রুপজিপিএ/ শ্রেণিবোর্ড/ বিশ্ববিদ্যালয়
এসএসসি২০০৮বিজ্ঞানজিপিএ ৫যশোর বোর্ড
এইচএসসি২০১০বিজ্ঞানজিপিএ ৫যশোর বোর্ড
বিএ২০১৩মানবিকদ্বিতীয়জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

অতএব, উপর্যুক্ত তথ্যাবলির আলোকে অনুগ্রহপূর্বক আমাকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য বিবেচনা করলে বাধিত হব।

বিনীত নিবেদক
ফাল্গুনী আহমেদ দীপিকা

সংযুক্তিঃ
১. সনদপত্রের সত্যায়িত অনুলিপি – ৩ কপি
২. নাগরিকত্ব ও চারিত্রিক সনদ – ২ কপি
৩. সত্যায়িত পাসপোর্ট সাইজ ছবি – ৩ কপি

ইংরেজিতে দরখাস্ত বা আবেদন পত্র লেখার নমুনা

ইংরেজিতে দরখাস্ত বা আবেদন পত্র লেখার নমুনা অনেকের কাছে অনেক ধরনের। কিন্তু আমি এখানে এমন একটি ফরম্যাট দিব যা ফলো করলে আপনি ইংরেজিতে দরখাস্ত লিখতে পারবেন অনায়াসে।

Date: 01-01-2021
To The Manager
Bangladesh TechyBN.com
Dhaka

Subject: এখানে বিষয় লিখবেন

Sir,
দরখাস্ত বা আবেদন পত্রের বর্ণনা লিখবেন এখানে।

You’re Obedient
MisterXY
Senior Officer
Bangladesh Shoptips24 Ltd. Dhaka

দরখাস্ত নিয়ে জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

দরখাস্ত লেখার নিয়ম নিয়ে আপনাদের মনে কিছু কমন প্রশ্ন আসতে পারে। চলুন এসকল প্রশ্ন এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর জেনে নেওয়া যাক।

দরখাস্তে বা আবেদন পত্রে কি মার্জিন টানা যাবে?

মার্জিন টানা বাধ্যতামূলক কিছু নয়। আপনি চাইলে মার্জিন টানতেও পারেন আবার নাও টানতে পারেন। মার্জিন টানলে পেন্সিল দিয়ে মার্জিন টানতে হবে। যদি মার্জিন না টানেন তাহলে উপর ও বাম পাশে ১ স্কেল পরিমাণ জায়গা ফাঁকা রাখতে হবে।

দরখাস্ত বা আবেদন পত্র কি হাতের লেখায় লিখতে হবে?

যদি স্কুল, কলেজের জন্য দরখাস্ত বা আবেদন পত্র লেখেন তাহলে হতের লেখার জমা দেওয়া ভালো হবে। তবে যদি অফিসে কিংবা চাকরির জন্য আবেদনের জন্য দরখাস্ত বা আবেদন পত্র লেখেন তাহলে কম্পিউটার কম্পোসে লিখতে পারেন।

দরখাস্ত বা আবেদন পত্রে অতিরিক্ত কাগজ পত্র কিভাবে যুক্ত করব?

মূল দরখাস্তের সাথে অন্যান্য কাগজ পত্র পিন করে যুক্ত করতে হবে।

দরখাস্ত বা আবেদন পত্র কি এক পৃষ্ঠায় লিখতে হবে?

দরখাস্ত বা আবেদন পত্র এক পৃষ্ঠায় লিখতে পারলে ভালো। তবে, প্রয়োজনে একের অধিক পৃষ্ঠা নিতে পারেন। তবে, দরখাস্ত বা আবেদন পত্র এক পৃষ্ঠার অপর পাশে লেখা যাবে না।

দরখাস্ত বা আবেদন পত্র কোন ধরনের পৃষ্ঠায় লিখতে হবে?

দরখাস্ত বা আবেদন পত্র আপনার যে কোন ধরনের পৃষ্ঠায় লিখতে লিখতে পারেন। তবে ভালো মানের পৃষ্ঠা বেছে নেওয়া বুদ্ধি মানের কাজ হবে। তবে, আপনি চাইলে A4 পৃষ্ঠা বেছে নিতে পারেন।

আমাদের শেষ কথা

আজকের এই পোস্টের ভিতর আমি আপনাদের সাথে আবেদনপত্র বা দরখাস্ত লেখার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি। আমাদের মাঝে অনেকেই আবেদনপত্র লেখার নিয়ম জানে না। তাদের জন্য এই পোস্টটি সহায়ক হবে বলে আশা করছি। আপনার যদি এই পোস্ট বিষয়ক যেকোনো ধরণের প্রশ্ন থাকে, তবে অবশ্যই মন্তব্য করবেন।

Visited 437 times, 1 visit(s) today

2 thoughts on “অভিনব পদ্ধতিতে দরখাস্ত লেখার নিয়ম | এক ফরম্যাটই যথেষ্ট”

Leave a Comment

You cannot copy content of this page